পারিবারিক মূল্যবোধ ধরে রাখতে করণীয়

পারিবারিক মূল্যবোধ ধরে রাখতে করণীয়

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল: ছেলেবেলার কিছু স্মৃতি থাকে পরবর্তী সময়ে কোনো কোনো ঘটনার ক্ষেত্রে উদাহরণ হয়ে দাঁড়ায়। ক্লাস ফাইভ কি সিক্সে পড়ি এক দিন খুব ইচ্ছে হলো দেয়াল দিয়ে হেঁটে চলা একদল পিঁপড়ার (যাদের মুখে খাদ্যের ছোট ছোট দানা ছিল) গন্তব্য খুঁজে বের করা। খুঁজতে খুঁজতে দেখলাম, গন্তব্য একটি চিনির বয়াম। রান্নাঘরে চিনির বয়ামের মুখ আলগা ছিল। তার চারপাশ পিঁপড়া দিয়ে ভর্তি। এ অবস্থায় আমি কাউকে কিছু না বলে চিনির বয়ামটি যেভাবে ছিল সেভাবেই রাখলাম। কারণ আমার মূল উদ্দেশ্য, পিঁপড়াগুলো শেষ পর্যন্ত কোথায় যাচ্ছে, তা খুঁজে বের করা। আমি এবার একটি পিঁপড়াকে টার্গেট করলাম যে প্রথমে ছিল, তার চলাফেরা-ভাবভঙ্গি দেখে মনে হলো সে-ই এদের নেতা। আমিও বাছাধনের পেছনে যাত্রা করলাম। পিঁপড়াগুলো নেতাকে অনুসরণ করে বড় দুই-তিনটি ঘর পার হয়ে জানালা দিয়ে বেরিয়ে গেল। আমিও নাছোড়বান্দা। দরজা দিয়ে বের হয়ে দৌড়ে জানালার দিকে…
Read More
শিশু-কিশোরের ক্ষেত্রে সময়মতো সঠিক পদক্ষেপ নিন

শিশু-কিশোরের ক্ষেত্রে সময়মতো সঠিক পদক্ষেপ নিন

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল : শিশুরা সাবালক না হওয়া পর্যন্ত জীবনের নানা বিষয়ে সিদ্ধান্তের ক্ষেত্রে অভিভাবকের মুখাপেক্ষী থাকে বা থাকা উচিত। অভিভাবকদের সঠিক নির্দেশনা যেমন তাদের সঠিক পথে পরিচালিত করে, ঠিক তেমনি আমাদের ভুল নির্দেশনা তার চিন্তা-চেতনায় বড় ধরনের কুপ্রভাব ফেলতে পারে। আমার কাছে যেটা উদ্বেগের বিষয়, তা হলোÑএই শিশুরা কেন, কীভাবে বিভিন্ন সামাজিক অপরাধে জড়াচ্ছে? তা নিয়েই আজকের লেখা। একদিন রামপুরা থেকে মৌচাকের রাস্তায় হাঁটছি। দেখলাম আনুমানিক ছয় থেকে ১২ বছর বয়সের কয়েকটি ছেলেমেয়ে একত্রিত হয়েছে (যাদের আমরা টোকাই বলে থাকি), তাদের মধ্যে তিন-চারজনের হাতে একটি করে প্লাস্টিকের ব্যাগ। সে ব্যাগে মুখ লাগিয়ে তারা জোরে জোরে শ্বাস টানছে। কৌতূহলবশত পাশের দোকানদারকে জিজ্ঞাসা করতেই তিনি বললেন, ‘আর বলবেন না ভাই, ওরা জুতা জোড়া লাগানোর গাম প্লাস্টিকের ব্যাগে ঢুকিয়ে টানছে, এতে নাকি নেশা হয়!’ আমি জিজ্ঞাসা করলাম, ‘আপনারা কিছু বলেন না? এভাবে খোলা রাস্তায় নেশা করছে…
Read More
নিরুৎসাহিত না হয়ে এগিয়ে চলুন- (Motivational)

নিরুৎসাহিত না হয়ে এগিয়ে চলুন- (Motivational)

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল আপনার আশপাশে এমন অনেক কিছু,  এমন অনেক মানুষ আছে যাদের আকার ইঙ্গিত, কর্মকান্ড আপনাকে বহুবার নিরুৎসাহিত করবে। তারা আপনাকে কারণে অকারণে হেয় করবে যেন আপনি মানসিকভাবে ভেঙে পরেন! একই পরিমণ্ডলে কর্মরত জনগোষ্ঠী দেখবেন জাতি-ধর্ম-বর্ণ-কর্ম নির্বিশেষে বহুভাগে বিভক্ত যার কোনটাতেই প্রাথমিক প্রবেশাধিকার পাবেন না। ছোটছোট যেই দল গলিতে তারা বিভক্ত তার মাঝেও উপদল, যেখানে আরও নির্দিষ্টতা থাকে যেমনঃ  ওমুক ভার্সিটি, অমুক জেলা, অমুক উপজেলা!  আপনি বেচারা কোথায় যাবেন! আপনার স্থান কোথায়। হয়ত দেখবেন আপনার নিজের এলাকার পরিচিত একজন গায়ে নীল রঙ মেখে নীল দলে অবস্থান করছে, আর সে কোনভাবেই আপনার কোন উদ্যোগকে উৎসাহতো দিচ্ছেইনা বরং আপনাকে চরম ভাবে উপেক্ষা করছে। এমনকি হাজার চেষ্টা করেও আপনি তার পক্ষ থেকে কোন সারা পাচ্ছেন না। এটাই স্বাভাবিক,  আপনাকে মেনে নিতে হবে যে উনি এখন নীল দলের আর আপনি ইচ্ছা করলেই নীল…
Read More
রোমেছাদের বাড়ি ফেরা যেন বিষাদে পরিণত না হয়

রোমেছাদের বাড়ি ফেরা যেন বিষাদে পরিণত না হয়

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল: রোমেছা একজন গার্মেন্ট মেশিন অপারেটর। বাড়ি লালমনিরহাটের মোগলহাট ইউনিয়নে। ঢাকায় আছে সাত-আট বছর ধরে। তার সঙ্গে থাকে স্বামী আর এক ছেলেসন্তান। বাড়িতে রয়েছেন বাবা-মা আর এক ছোট ভাই। রোমেছা যখন গ্রামে ছিল, তখন তার বিয়ে হয়নি। সে আর মা মানুষের বাড়ি ও ক্ষেতখামারে কাজ করতো। বাবা কবছর আগে সড়ক দুর্ঘটনায় দুই পা হারানোয় কাজ করার সামর্থ্য নেই। গরিব হলেও মান-সম্মানের ভয়ে ভিক্ষেও করতে পারেন না; আবার সংসারও চলে না। সেজন্যই রোমেছা আর তার মা দিনহাজিরায় কাজ শুরু করেছিলেন। ছোট ভাইটি বাউণ্ডুুলেদের সঙ্গে মিশে একেবারে বখে গেছে। ওকে দিয়ে আর কিছুই হবে না তা রোমেছা খুব ভালো করে জানে। সে তো বাসায় এসে ভাত সামনে পায়; কী করে বুঝবে গ্রাম এলাকায় মেয়েমানুষরা কাজ করে কত টাকাইবা আয় করতে পারে! পুরুষ দিনমজুরদের দিনহাজিরা সব সময় একটু বেশি থাকে। হুট…
Read More
পর্যটনও বড় অবদান রাখছে কাতারের অর্থনীতিতে

পর্যটনও বড় অবদান রাখছে কাতারের অর্থনীতিতে

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল: পলিমাটির দেশ বাংলাদেশ। এখানে বিভিন্ন ধরনের শস্য ফলে, যা আমাদের সবার জানা। আবার রয়েছে প্রাকৃতিকভাবে পাওয়া কিংবা ঐতিহাসিক দর্শনীয় স্থান। ১৯৭১ সালে স্বাধীন সার্বভৌম বাংলাদেশ পাওয়া এবং এর আগে উপনিবেশসহ বিভিন্ন ঘটনার সাক্ষী আমাদের প্রিয় জš§ভূমি। দেখার জন্য রয়েছে অনেক দর্শনীয় স্থান, যেমন কক্সবাজার, যা বিশ্বের সর্ববৃহৎ সমুদ্রসৈকত। সুন্দরবন, যা বিশ্বের সর্ববৃহৎ ম্যানগ্রোভ ফরেস্ট; রয়েছে মহাস্থানগড়, ময়নামতি, লালবাগের কেল্লার মতো ঐতিহাসিক স্থান। আরও রয়েছে মুগ্ধ করার মতো সাজেক ভ্যালি! মরুভূমির দেশ কাতার, যেদিকেই চাইবেন শুধু ধূ-ধূ মরুভূমিই থাকার কথা। মরুভূমি বলতে বালু, বালিয়াড়ি, পানির উৎসের স্বল্পতা, যেখানে হয় না কোনো শস্য। যাদের খাবার থেকে শুরু করে অধিকাংশ প্রয়োজনীয় পণ্য অর্থের বিনিময়ে আমদানি করতে হয় বিভিন্ন দেশ থেকে। তবে ধনী হওয়ায় তারা সবচেয়ে দামি জিনিসগুলোই আমদানি করে থাকে। যেখানে কোনো শস্য নেই, যাদের সঙ্গী ৪৫-৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রা, সেই…
Read More
বেহাল রাস্তা: জ্যামের ফাঁদে নষ্ট হচ্ছে কর্মঘণ্টা

বেহাল রাস্তা: জ্যামের ফাঁদে নষ্ট হচ্ছে কর্মঘণ্টা

Article
তৌহিদুল ইসলাম চঞ্চল: বিভিন্ন গাড়িতে ‘জরুরি রফতানি কাজে নিয়োজিত’ (ইংরেজিতে অন ইমারজেন্সি এক্সপোর্ট ডিউটি) লেখা দেখলে ভালোই লাগে। রফতানি বাড়লে দেশের উন্নতি হবে, প্রত্যাশিত সময়ের আগে মধ্যম আয়ের দেশে পরিণত হবে দেশ। সাধারণ মাইক্রোবাসের গায়ে ‘অ্যাম্বুলেন্স’ লেখা দেখেও ভালো লাগে। মৃত্যুযন্ত্রণায় কাতর রোগীকে বহন করে এ অ্যাম্বুলেন্স। হোক না মাইক্রোবাস! কিন্তু মহৎ ও মানবিক কাজে ব্যবহার হচ্ছে অ্যাম্বুলেন্সগুলো। ছোটবেলায় শিখেছিলাম অ্যাম্বুলেন্স, ফায়ার সার্ভিসের গাড়িকে আগে যেতে দিতে হয়, রাস্তা ফাঁকা করে দিতে হয়। সে শিক্ষা থেকেই বাইসাইকেল, মোটরসাইকেল, রিকশাÑযেটিরই আরোহী থাকি, সাইরেন শুনলে থেমে আগে জায়গা করে দিতাম। এখন সে দিন আর নেই। সবই ‘জরুরি’ হয়ে গেছে! গ্যাস কোম্পানির একটা ছোট্ট পিকআপে লেখা থাকে ‘জরুরি গ্যাস সরবরাহ কাজে নিয়োজিত’। যদিও প্রশ্ন এটি কতটা সত্য। ‘গ্যাসলাইন মেরামতের কাজে ব্যবহৃত’ লেখা থাকলেই মেনে নেওয়া যেত। ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের গাড়িতে লেখা ‘জরুরি ওষুধ সরবরাহ কাজে নিয়োজিত’।…
Read More